চাঁপাইনবাবগঞ্জ | মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ info@mohanonda24.com +৮৮ ০১৬৮২ ৫৬ ১০ ২৮, +৮৮ ০১৬১১ ০২ ৯৯ ৩৩
যেসব দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়ানো হচ্ছে এসব প্রতি হিংসা থেকে আমরা বাঁচতে চাই। 

গণঅধিকার পরিষদ এর বিক্ষোভ সমাবেশ

হ.আ/রিপোর্টার | প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ০৯:৫৫

হ.আ/রিপোর্টার
প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ০৯:৫৫

গণঅধিকার পরিষদ এর বিক্ষোভ সমাবেশ

নিউজ ডেস্ক: আজ (১০ই ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৪টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার শান্তি মোড়ে- বিদ্যুত, গ্যাসের অস্বাভাবিক দাম বৃদ্ধি ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির  প্রতিবাদে গণঅধিকার পরিষদ চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা শাখা বিক্ষোভ সমাবেশ করে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ গণঅধিকার পরিষদের যুগ্ন আহ্বায়ক  আলমগীর কবির সিপ্টি বলেন, এই সরকার বিদ্যুৎ, গ্যাসসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের যে প্রতিযোগিতায় মেতে উঠেছে এ প্রতিযোগিতাযর প্রতিবাদ করতে আমরা একত্রিত হয়েছি। তিনি বলেন আমরা ছোটবেলায় বই পড়ে এসেছি এবং শুনে এসেছি ১৯৭১ সালে দেশ স্বাধীন হয়েছিল। কিন্তু যুদ্ধের ৫২ বছর পরও আমরা নিজেদের ভোটের অধিকার নিয়ে আমারা কথা বলতে পারি না। তিনি বলেন যেসব দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়ানো হচ্ছে এসব প্রতি হিংসা থেকে আমরা বাঁচতে চাই। 

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার সদস্য সচিব মেজবাউল বলেন, এই সরকার গ্যাস, তেল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের দাম বাড়িয়েছে এজন্য গণঅধিকার পরিষদ সারাদেশে বিক্ষোভ সমাবেশ শুরু করেছে। তিনি বলেন এ সরকারের লজ্জা-শরম নেই। এই সরকারের যদি লজ্জা শরম থাকতো তাহলে গদি ছেড়ে দিত। এই সরকারকে জনগণ চায় না। এই সরকার অবৈধ সরকার। এ সরকার মূল্যবৃদ্ধি করছে শুধু বিদেশে টাকা পাচারের জন্য। তিনি বলেন এ সরকারকে গ্যাস ও তেলের দাম কমাতে হবে,  না হলে আবারও গণ আন্দোলন শুরু হবে।

সমাবেশে আরও বলা হয় সরকার বিরোধী কথা বললে আমাদেরকে জেলে দেওয়া হচ্ছে। সরকারবিরোধী কথা না বললে সমাবেশ বা আন্দোলন করতে দেওয়া হয়।

গণঅধিকার পরিষদের সম্মানিত আহ্বায়ক ইউসুফ আলী বলেন, গণঅধিকার এর প্রতিষ্ঠাতা ভিপি- নুর ও সাধারণ জনগণের জন্য নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের দাম কমাতে আমরা আজ ৫২ টি জেলায় বিক্ষোভ-সমাবেশ নিয়ে রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছি। 

এসময় সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ গণঅধিকার পরিষদের বিভিন্ন নেতাকর্মীরা। তারা তাদের দাবিগুলো জানিয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ শেষ করেন।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: