চাঁপাইনবাবগঞ্জ | মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ info@mohanonda24.com +৮৮ ০১৬৮২ ৫৬ ১০ ২৮, +৮৮ ০১৬১১ ০২ ৯৯ ৩৩
আজ দুপুরে সামিউলসহ কয়েকজন দিয়াড় মানিকচক সীমান্তের ৫ নম্বর সীমান্ত পিলার এলাকার জিরো লাইন থেকে ১৫০ গজ বাংলাদেশের ভেতরে ঘাস কাটছিল।

গোদাগাড়ী সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে একজন নিহত

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশিত: ৯ নভেম্বর ২০২৩ ২০:৫৮

স্টাফ রিপোর্টার
প্রকাশিত: ৯ নভেম্বর ২০২৩ ২০:৫৮

সংগৃহিত ছবি (ইন্টারনেট)

নিউজ ডেস্ক: আজ বৃহস্পতিবার (৯ নভেম্বর) বেলা ১২টার দিকে রাজশাহীর গোদাগাড়ী সীমান্তে বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ) এর গুলিতে বাংলাদেশি এক কিশোর নিহত হয়েছে। সীমান্তের কাছে গরুর জন্য ঘাস কাটতে গেলে বিএসএফ গুলি ছোঁড়ে। এবং তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলেই মারা যায় সে।

নিহত কিশোরের নাম সামিরুল ইসলাম ওরফে সামিউল (১৬)। সে গোদাগাড়ী উপজেলার চর আষাড়িয়াদহ ইউনিয়নের বারীনগর গ্রামের হাসিবুল ইসলামের ছেলে।

এ বিষয়ে চরআষাড়িয়াদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফুল হক ভোলা জানান, সীমান্তে বাংলাদেশ ও ভারতের কৃষকদের ফসলের ক্ষেত রয়েছে। আজ দুপুরে সামিউলসহ কয়েকজন দিয়াড় মানিকচক সীমান্তের ৫ নম্বর সীমান্ত পিলার এলাকার জিরো লাইন থেকে ১৫০ গজ বাংলাদেশের ভেতরে ঘাস কাটছিল। এ সময় ভারতের চর আষাড়িয়াদহ বিএসএফের একটি টহল দল তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই সে মারা যায়। বাকিরা পালিয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে বিজিবির সাহেবনগর ও দিয়াড় মানিকচক ফাঁড়ির দুটি টহল দল ঘটনাস্থলে যায়। ঘটনার পর বিজিবি ৫৩ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল নাহিদ হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। পুলিশ কিশোর সামিউলের লাশ উদ্ধার করেছে। এ ঘটনার পর সীমান্তে বসবাসকারী সাধারণ মানুষের মধ্যে আতঙ্ক এবং ক্ষোভ বিরাজ করছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে পতাকা বৈঠক আহ্বান করেছে বিজিবি।

আশরাফুল হক ভোলা আরোও বলেন, ‘সীমান্তঘেঁষা কাঁটাতারের বেড়ার পাশে না যাওয়ার জন্য স্থানীয় লোকজনকে সতর্ক করে মাইকিং করা হয়। বিএসএফ সম্পূর্ণ উস্কানিমূলকভাবে গুলি করেছে। সীমান্তের কাঁটাতারের কাছে কাউকে যেতে দেখলেই গুলি করে।’

গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আইন অনুযায়ী লাশ হস্তান্তর ও ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: