চাঁপাইনবাবগঞ্জ | মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১ info@mohanonda24.com +৮৮ ০১৬৮২ ৫৬ ১০ ২৮, +৮৮ ০১৬১১ ০২ ৯৯ ৩৩

বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগীতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান শাহ্ নেয়ামাতুল্লাহ কলেজ

ডেস্ক রিপোর্ট | প্রকাশিত: ১২ জুন ২০২৪ ২৩:২৪

ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ১২ জুন ২০২৪ ২৩:২৪

সংগৃহীত

চাঁপাইনবাবগঞ্জের অন্যতম বিদ্যাপীঠ শাহ নেয়ামতুল্লাহ কলেজে বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা-২০২৪ এর পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার সকালে কলেজ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য মোঃ আব্দুল ওদুদ

 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, আপনারা কলেজটি জাতীয়করণ করা থেকে শুরু করে একাডেমিক ও হোস্টেলসহ আমার কাছে অনেক কিছু চেয়েছেন। সবই করে দেয়া হবে, তবে শর্ত একটাই পরীক্ষার ফলাফল ভালো করতে হবে। তিনি আরো বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জকে সুন্দর করতে ১০০ কোটি টাকার বরাদ্দ চেয়ে ছোট-বড় অনেক প্রকল্প জমা দিয়েছি। আশা করছি, অচিরেই এগুলো পাস হবে। পাস হলে বিশেষ করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের চেহারা পাল্টে যাবে।

অনুষ্ঠানটি অত্র কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ শরিফুল আলমের সভাপতিত্বে ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক উম্মে নাহার সাউদা চৌধুরী ও ইংরেজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বিলকিস আরা বানু সঞ্চালনায় পরিচালিত হয়। 

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন কলেজটির গভর্নিং বডির সভাপতি ও বালুগ্রাম আদর্শ কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সাইদুর রহমান, নবাবগঞ্জ সরকারি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ও গভর্নিং বডির সদস্য প্রফেসর সুলতানা রাজিয়া। সূচনা বক্তব্য দেন- কলেজটির ফিন্যান্স বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাহফুজুল হাসান।

জাতীয় সংসদ সদস্য আব্দুল ওদুদ সকলের উদ্দেশ্যে বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন তাঁরই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সরকারের সমালোচনা করার অধিকার সকলেরই আছে। তবে সেই সমালোচনা হতে হবে গঠনমূলক। অকারণে সরকারের বদনাম করবেন না।

সেই ছোটবেলায় বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সংগঠন ছাত্রলীগ করার অপরাধে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আমলে ২৯ দিন কারাভোগ করতে হয়েছে উল্লেখ করে আব্দুল ওদুদ বলেন- বঙ্গবন্ধু ইসলামের প্রচার ও প্রসারের জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশন করেছিলেন, মসজিদ তৈরি করেছিলেন, ইজতেমার ব্যবস্থা করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর পথ অনুসরণ করে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা সারাদেশে প্রতিটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ করে দিয়েছেন। অন্যদিকে বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় থাকাকলীন ইসলামের জন্য কিছুই করেনি। মাদ্রাসা শিক্ষাকে অধিক গুরুত্ব দিয়েছেন।

উল্লেখ্য, সংসদ সদস্যের কাছে একটি ১০০ শয্যার হোস্টেল, একটি চারতলা একাডেমি ভবন ও শাহ নেয়ামতুল্লাহ কলেজকে জাতীয়করণসহ বিভিন্ন দাবি-দাওয়া তুলে ধরা হয়।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: