চাঁপাইনবাবগঞ্জ | মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ info@mohanonda24.com +৮৮ ০১৬৮২ ৫৬ ১০ ২৮, +৮৮ ০১৬১১ ০২ ৯৯ ৩৩
পানিবন্দি মানুষকে পানিমুক্ত করা সওয়াবের কাজ। ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে পানিবন্দি ফতুল্লাবাসীর জলাবদ্ধতা নিরসনে নিজ অর্থায়নে ট্রান্সফরমার কিনে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান।

পানিবন্দি মানুষকে পানিমুক্ত করা নেকির কাজ : শামীম ওসমান

নিউজ ডেস্ক | প্রকাশিত: ২৯ মে ২০২৪ ২০:৫৫

নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৯ মে ২০২৪ ২০:৫৫

ছবি : সংগৃহীত

নিউজ ডেস্কঃ শামীম ওসমান বলেন, ফতুল্লার লালপুর এলাকার রাস্তা উঁচু এলাকা নিচু। তাই তিন লাখ মানুষ প্রায় পানিবন্দি হয়ে আছে। আমরা এখানে তিনটি পানির মোটর পাম্প বসিয়েছিলাম। এখানে একটি ট্রান্সফরমার ছিল, সেটা খুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ট্রান্সফরমার না হলে তিনটা পাম্প চালানো যাবে না। এটার কারণে প্রচুর পানি জমে রাস্তা ও মসজিদ, মন্দিরে গিয়ে ডুকছে। পানিবন্দি মানুষকে পানিমুক্ত করা সওয়াবের কাজ।
তিনি বলেন, আমি সাংবাদিকদের সহযোগিতা চাই। এখন এখানে ৩১৫ কিলোওয়াটের ট্রান্সফরমার লাগে। এটা ছিল এখানে, খুলে নেওয়া হলো কেন? এখান থেকে ৯০ লাখ টাকা বকেয়া বিল আছে। এগুলো পরিশোধ হয়নি, কে পরিশোধ করবে? ইউনিয়ন পরিষদ বা আমার পক্ষে সম্ভব নয়। ৩১৫ কিলোওয়াটের ট্রান্সফরমার না হলে তিনটা পাম্প চালানো যাবে না। আপাতত আমরা ট্রান্সফর্মার কিনছি। আমি নিজে ট্রান্সফর্মার কিনে দিব। আগামী কয়েকদিনে পানি নেমে যাবে।
তিনি আরও বলেন, সরকারের কাছে চাওয়া মানে একটা প্রসিডিউর আছে, এখানে সময় লাগবে। এখন যত টাকা দাম হোক আমি ঠিক করেছি সদকায়ে জারিয়া হিসেবে এই ট্রান্সফরমার কিনতে যত টাকা লাগে আমি দেব। এখানে অনেক ধনী লোক আছে। তারা এগিয়ে আসুক। এ এলাকায় বাড়ি দু’ফুট নিচে। কতদিন আমি এভাবে চলব। এলজিআরডিতে আমি স্পেশাল প্রজেক্ট দিয়েছি।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: