ঢাকা বুধবার, ২০শে অক্টোবর ২০২১, ৬ই কার্তিক ১৪২৮


মেসির অভিষেক গোলে পিএসজির জয়


প্রকাশিত:
২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৯:৩৬

আপডেট:
২০ অক্টোবর ২০২১ ০৬:২১

নিউজ ডেস্কঃ চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গত আসরের সেমি-ফাইনালে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে হেরে বিদায় নিয়েছিল পিএসজি। দুই লীগের হার ফরাসি জায়ান্টদের টানা দ্বিতীয়বার ফাইনালে উঠার স্বপ্নভঙ্গ করেছিল। এবার মেসি-গুয়ের নৈপুণ্যে সেই প্রতিশোধ নিয়েছে পিএসজি। ২-০ ব্যবধানে গার্দিওলার সিটিকে হারিয়ে দিয়েছে পচেত্তিনোর পিএসজি।

বার্সেলোনা থেকে উড়ে পিএসজিতে যোগ দিয়েছিলেন সেই কবে। এতদিন ধরে মেসি ম্যাজিকের অপেক্ষায় ছিল পিএসজি সমর্থকেরা। কিন্তু শুরুর দিকে ততটা মানিয়ে নিতে পারেননি মেসি। এর মধ্যেই ছিটকে গিয়েছিলেন ইনজুরিতে। খেলতে পারেননি লিগ ওয়ানের দুইটি ম্যাচ। চোট সেরে মাঠে নেমে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইনের হয়ে প্রথম গোলের দেখা পেলেন ছয়বারের বর্ষসেরা ফুটবলার। মেসির অভিষেক গোলে সিটিকে হারিয়ে পুরো তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছেড়েছে পিএসজি।

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণ পাল্টা আক্রমণে জমজমাট হতে থাকে দুই দলের লড়াই। দুই দলই গোলের সুযোগ পেয়েছে কয়েকবার। ম্যাচের অষ্টম মিনিটে ইদ্রিসা গুয়ের গোলে এগিয়ে যায় পিএসজি। নেইমারের ফ্লিক থেকে দুর্দান্ত এক বুলেট গতির শটে সিটির জাল খুঁজে নেন সেনেগালিজ এ মিডফিল্ডার।

পিছিয়ে পড়ে ম্যাচে ফিরতে আক্রমণের ধার বাড়ায় সিটি। ম্যাচের ২৬তম মিনিটেই সমতা ফেরাতে পারতো সিটি। কেভিন ডি ব্রুইনের ক্রসে রহিম স্টার্লিংয়ের হেড ক্রস বারে লেগে ফিরে আসে, ফিরতি বলে ৬ গজ দূরত্ব থেকে বার্নার্ডোর শট ক্রস বারে লেগে গোল হয়নি।

এরপর ম্যাচের ৩৮তম মিনিটে আক্রমণের সুযোগ তৈরি করে পিএসজি। কিন্তু গোলরক্ষকের দক্ষতায় বেঁচে যায় সিটি। প্রথমার্ধে ১-০ গোলে এগিয়ে বিরতিতে যায় পিএসজি।

দ্বিতীয়ার্ধে খেলতে নেমে বল দখলে এগিয়ে থাকে সিটি। কিন্তু পচেত্তিনোর দলের রক্ষণ কোনভাবেই ভাঙতে পারছিল না গার্দিওলার শিষ্যরা। বারবার সুযোগ হাতছাড়া করতে থাকা সিটির জালে ৭৪তম মিনিটে পিএসজির হয়ে প্রথম গোলের দেখা পান লিওনেল মেসি। দুর্দান্ত এক গোল করে স্কোরলাইন দ্বিগুণ করেন আর্জেন্টাইন এ ফরোয়ার্ড। পাল্টা আক্রমণ থেকে এমবাপ্পের সঙ্গে ওয়ান টু খেলে বক্সের বাইরে থেকে নিঁখুত শটে পিএসজির হয়ে প্রথম লক্ষ্যভেদ করলেন এই তারকা। গোলরক্ষক এডারসনের চেয়ে দেখা ছাড়া কিছুই করার ছিল না। চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এটা মেসির ১২১তম গোল।

এ গোল পেয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ম্যানসিটির বিপক্ষে সর্বোচ্চ সাত গোল করার রেকর্ড গড়েন তিনি। এছাড়া ইংলিশ ক্লাবগুলোর বিপক্ষে ৩৫ ম্যাচে ২৭ গোল করার মালিকও বনে যান তিনি।

দুই গোলে পিছিয়ে পড়ার পর চেষ্টা করেও আর ব্যবধান কমাতে পারেনি সিটি। যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে সুযোগও আসে, কিন্তু রিয়াদ মাহরেজের ফ্রি কিক ঠেকিয়ে জাল অক্ষত রাখেন দোন্নারুম্মা।

‘এ’ গ্রুপের হয়ে ২ ম্যাচে ১ জয় ও ১ ড্র নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে রয়েছে পিএসজি। সমান ম্যাচে সমান পরিসংখ্যান নিয়ে দুইয়ে রয়েছে ক্লাব ব্রুজ। অপরদিকে ১ জয় ও ১ হার নিয়ে তিনে রয়েছে ম্যানসিটি। দুই ম্যাচের দুটিতেই হেরে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে অবস্থান করছে আর বি লাইপজিগ।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: