ঢাকা বুধবার, ২০শে অক্টোবর ২০২১, ৬ই কার্তিক ১৪২৮


মানবিকতার গুরুত্ব সবচেয়ে বেশী: রাবি উপাচার্য


প্রকাশিত:
১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ ২২:৪৫

আপডেট:
২০ অক্টোবর ২০২১ ০৬:০৮

নিউজ ডেস্কঃ

'মানবিকতার গুরুত্ব সবচেয়ে বেশী। আমাদের এটাকে সবচেয়ে বেশী গুরুত্ব দিতে হবে। মানবতা যদি বিপন্ন হয় তাহলে আইন বলুন আর যা-ই বলুন কিছুই কাজে আসে না। তাই আমাদের সকলের উচিত সচেতনতা বৃদ্ধি করা। আইনের অনেক বিষয় আমরা জানিনা। তাই আইনের শিক্ষক-শিক্ষার্থী তারা আমাদের মাঝে সচেতনতা একটু বৃদ্ধি করবেন। তাহলে অন্তত বলতে পারবো এটা আমার অধিকার। তাই মানবতা যদি বিপন্ন হয় তাহলে কোনো আইনই কাজে আসবে না।’

বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল অনুষদের কনফারেন্স রুমে আইন বিভাগে কর্তৃক আয়োজিত ‘অলটারনেটিভস টু ইমপ্রিজনমেন্ট উইথ স্পেশাল রেফারেন্স টু উইমেন প্রিজনারস: লিগ্যাল এন্ড প্র্যাক্টিক্যাল আসপেক্টস ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক জাতীয় সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার এসব কথা বলেন।

উপাচার্য আরও বলেন, ‘এখন আমাদের ব্রিটিশ বা পাকিস্তানিরা শাসন করছে না। আমরাই আমাদের দেশ শাসন করছি। কিন্তু দেখা যাচ্ছে আমরা যখন ক্ষমতায় যাচ্ছি আমাদের বোল এবং গোল দুটোই পাল্টে যাচ্ছে। এটা একটা বড় প্রশ্নের বিষয়। তাই সামনের দিকে যদি এগিয়ে যেতে হয় তাহলে আমাদের কলোনিয়াল ধারা থেকে বের হয়ে আসতে হবে এবং আইনের যে বাস্তব প্রয়োগ সেটা দেখাতে হবে।’

তিনি আরো বলেন, নারীরা দিনদিন আইনী কর্মকাণ্ডে জড়াচ্ছে, এজন্য তাদের মাঝে আইনী সচেতনতা খুব জরুরী।

আইন বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. হাসিবুল আলম প্রধানের সভাপতিত্বে ও ড. শাহীন জোহরা ও সুমাইয়া রহমানের সঞ্চালনায় সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য অধ্যাপক বিশ্বজিৎ চন্দ। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া ও অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম ও বাংলাদেশ সুপ্রীম কোর্টের এ্যাডভোকেট নাহিদ সুলতানা জুথি।

এছাড়াও সেমিনারের শুরুতে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন আইন বিভাগের অধ্যাপক আবু নাসের মো. ওয়াহিদ ও সহকারী অধ্যাপক কে এম এস তারেক।

উপস্থাপিত প্রবন্ধের উপর আলোচনা করেন আইন বিভাগের প্রফেসর ড. সাইদা আঞ্জু ও জেলা সমাজসেবা অফিসের উপ-পরিচালক মোসা. হাসিনা মমতাজ



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: