ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬শে জানুয়ারী ২০২১, ১৪ই মাঘ ১৪২৭


রাজশাহী মহানগর পুলিশের ৮ জনকে সাসপেন্ড


প্রকাশিত:
৮ জানুয়ারী ২০২১ ০৯:০৭

আপডেট:
২৬ জানুয়ারী ২০২১ ২৩:৫২

নিউজ ডেস্কঃ বিভিন্ন অপরাধে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশে কর্মরত টিএসআই, এএসআই, নায়েক ও পুলিশ কনস্টেবলসহ ৮ জনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। টিএসআই মনিরকে ৬ জানুয়ারি ও এএসআইসহ ৭ জনকে বৃহস্পতিবার পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক এক আদেশে সাময়িক বরখাস্ত করেন।

সাময়িক বরখাস্তকৃতরা হলেন, এএসআই (সশস্ত্র) বারেক, এএসআই (সশস্ত্র) মিজানুর রহমান, কনস্টেবল আফজাল, কনস্টেবল সালাম, কনস্টেবল ফরহাদ, কনস্টেবল শাহেদ।

জানা গেছে, রাজশাহী কলেজ মুসলিম ছাত্রাবাসের সামনে অবস্থিত একটি বাড়িতে বুধবার রাত আড়াইটার দিকে পুলিশ লাইনের ৯ জন পুলিশ সদস্য জুয়া খেলছিলেন। এ সময় নগরীর বোয়ালিয়া থানা পুলিশের কাছে খবর যায় একটি বাড়িতে জুয়া খেলা হচ্ছে। খবর পেয়ে থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের আটক করে। পুলিশ আটক করার পর তাদের পরিচয় জানতে পারে। ৯ জনের মধ্যে ৬ জন রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের সদস্য ও তিন জন রাজশাহী জেলা পুলিশের সদস্য।

বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক বৃহস্পতিবার তাদের সাময়িক বরখাস্তের আদেশ দেন।

এছাড়াও পুলিশের শৃঙ্খলা বিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার দায়ে বোয়ালিয়া থানার এএসআই বকুল হোসেকে এবং কাশিয়াডাঙ্গা পুলিশ বক্সের টিএসআই মনিরকে শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বরখাস্ত করা হয়েছে। যদিও থানার এএসআই বকুলকে বরখাস্তের কথা স্বীকার করেনি পুলিশ।

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার সদর গোলাম রুহুল কুদ্দুস বলেন, বুধবার গভীর রাতে পুলিশের কাছে খবর আসে একটি বাড়িতে কিছু লোক জুয়া খেলছে। খবর পেয়ে বোয়ালিয়া থানা পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে ৯ জনকে আটক করে। পরে পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায় ৬ জন আরএমপির সদস্য ও বাকি তিনজন জেলা পুলিশের। বৃহস্পতিবার পুলিশ কমিশনার এক আদেশে ৬ জনকে সাময়িক বরখাস্ত করেন। টিএসআই মনিরকে ৬ জানুয়ারি পুলিশের শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বরখাস্ত করা হয়।

তথ্যসুত্রঃ বিডি প্রতিদিন  



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: