ঢাকা শুক্রবার, ১২ই আগস্ট ২০২২, ২৮শে শ্রাবণ ১৪২৯

তারা যা বললেন


প্রকাশিত:
৩০ ডিসেম্বর ২০১৮ ১১:২৯

আপডেট:
১২ আগস্ট ২০২২ ০১:০৪

সারা দেশে বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনায় চলছে ভোট গ্রহণ। রোববার সকালেই ভোট দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ভোট দেওয়ার পর তিনি বলেছেন, ‘আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি। আমার বিশ্বাস, স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের শক্তির জয় হবে। স্বাধীনতার পক্ষের জয় হবে। উন্নয়ন অগ্রগতি অব্যাহত রাখার জন্য নৌকা মার্কার ভোট দেবে। আমি জানি বাংলার জনগণ আমাদেরকে বেছে নেবে। নৌকার জয় হবেই হবে।’

এদিন বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেনও ভোট দিয়েছেন। নৌকার বিজয় হবে, শেখ হাসিনা

রোববার সকাল সোয়া আটটার দিকে রাজধানীর সিটি কলেজ কেন্দ্রে নিজের ভোট দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভোট দেওয়ার পর তিনি গণমাধ্যমকর্মীদের মুখোমুখি হন।

এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘আই অ্যাম অলওয়েজ কনফিডেন্ট। নৌকার বিজয় হবে। স্বাধীনতার পক্ষের শক্তির বিজয় হবে। মানুষ উন্নয়নের পক্ষে তাদের রায় দেবে।’

নির্বাচনী সহিংসতা নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি কাল সারারাত পরিস্থিতি মনিটর করেছি। কয়েকটি জায়গায় কিছু ঘটনা ঘটেছে। এগুলো খুবই দুঃখজনক। আমাদের চারজনকে হত্যা করেছে। হত্যা করার ধরন একই রকম। বিক্ষিপ্ত কিছু ঘটনা ঘটেছে। আমাদের ১০ নেতাকর্মী নিহত হয়েছেন। আমরা সহিংসতা চাই না। শান্তিপূর্ণভাবে জনগণ ভোট দেবে। যাকে খুশি তাকে ভোট দিয়ে জয় যুক্ত করবে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা যদি শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন করি তাতে যেই ক্ষমতায় আসুক বাংলার উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে। তাহলে ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে আমরা জাতির পিতার সোনার বাংলা গড়তে পারব।’

আওয়ামী লীগ নির্বাচনের ফল মানবে কি না-এ প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কেন মানবে না, অবশ্যই মানবে। জনগণ যে রায় দেবে আমরা তা মাথা পেতে নেব।’

ভোট দিয়ে বেরিয়ে দুই আঙুল তুলে বিজয়ের চিহ্ন দেখান শেখ হাসিনা। সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় বোন শেখ রেহানা ও মেয়ে সায়েমা ওয়াজেদ হোসেন পুতুল তার সঙ্গে ছিলেন।

ভোট দিতে পারলে বিএনপির জয় হবে: ফখরুল

বিএনপির মহাসিচব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, জনগণ সুষ্ঠুভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারলে বিএনপির জয় নিশ্চিত।

সকাল ৮টার পরপরই ঠাকুরগাঁও-১ (ঠাকুরগাঁও সদর) নিজ আসনে ভোট দেয়ার পর তিনি এ মন্তব্য করেন।

ঠাকুরগাঁও সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেওয়ার পর উপস্থিত সাংবাদিকদের মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমি যে কেন্দ্রে ভোট দিয়েছি এখানের ভোটারদের লম্বা লাইন দেখা যাচ্ছে। এই কেন্দ্রে ভোট সুষ্ঠুভাবে হচ্ছে। কিন্তু আমি ইতোমধ্যে অভিযোগ পেয়েছি বেগুনবাড়ি এবং ঠাকুরগাঁও সরকারি কলেজে কেন্দ্র দখল করেছে আওয়ামী সন্ত্রাসীরা।’

এরপর মির্জা ফখরুল ঠাকুরগাঁও সরকারি কলেজে কেন্দ্রে যেয়ে দেখতে পান সেখানে কোনও বুথে তাদের পোলিং এজেন্ট নেই। একটি মাত্র মহিলা বুথে পোলিং এজেন্ট আছেন।

তিনি অভিযোগ করে সাংবাদিকদের বলেন, ‘মির্জা ফখরুল ইসলামের গাড়ি দেখার পর আমাকে মাত্র ঢুকতে দেওয়া হয়েছে। পরে মির্জা ফখরুল এই ব্যাপারে রিটার্নিং কর্মকর্তা ড. কামরুজ্জামান সেলিমকে ফোনে অভিযোগ করেন।

জাল ভোট আমাদের উদ্বিগ্ন করছে: ড. কামাল

ঢাকা-৮ আসনের ভিকারুন নিসা নুন স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন। আজ সকাল পৌনে ৯টায় স্ত্রী হামিদা হোসেন ও মেয়ে সারা হোসেনকে নিয়ে ভোটকেন্দ্রে এসে ভোট দেন তিনি।

ভোট দেয়ার পর ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘গতরাত থেকে দেশের বিভিন্ন জায়গায় অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে বলে শুনতে পেরেছি। বিভিন্ন জায়গায় সিল মেরে জাল ভোটের খবর পেয়েছি। এটা আমাদেরকে উদ্বিগ্ন করছে। এটা করা উচিত নয়। নির্বাচন কমিশনকে বিষয়টি জানাব।’

সাংবাদিকেরা দেশের সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে কামাল হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ে মন খারাপ করাতে চাই না। মিনিটে মিনিটে ফোন পাচ্ছি। রাতেই নাকি বিভিন্ন জায়গায় ভোট হয়েছে। এগুলো দুঃখজনক, লজ্জাজনক। পদক্ষেপ নিতে হবে। সারা দেশ থেকে যে খবর পাচ্ছি, তা উদ্বেগজনক। এটা শহীদদের সঙ্গে বেইমানি, বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে বেইমানি করা।’

এজেন্ট নিয়ে প্রশ্ন করলে কামাল হোসেন বলেন, ‘এখানে এজেন্ট আছে। তবে বাইরে অনেক জায়গায় আমরা এজেন্ট দিতে পারিনি। অনেক জায়গা থেকে খবর পাচ্ছি আমাদের এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে। আমি দাবি করব এর তদন্ত হোক।’

নির্বাচন মেনে নিবেন কিনা সেই প্রশ্নের উত্তরে ড কামাল বলেন, সেটা নির্বাচনের ফলাফল জানার পরে বলা যাবে।

ভোটের পরিবেশ অনেক শান্ত: কাদের

নোয়াখালী-৫ (কোম্পানীগঞ্জ-কবিরহাট) আসনে ভোট দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।রোববার সকাল ৮টা ৫০ মিনিটে উদয়ন প্রি-ক্যাডেট একাডেমি স্কুলে কেন্দ্রে ভোট প্রদান করেন তিনি।

ভোট দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, নির্বাচন বানচালে সাম্প্রদায়িক শক্তি বিভিন্ন ঘটনা ঘটাচ্ছে, তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী প্রস্তুত আছে। ভোটের পরিবেশ এখনও অনেক শান্ত, বিচ্ছিন্ন ঘটনা কোনো প্রভাব ফেলবে না।

মহনন্দা২৪/এনএম



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: