ঢাকা বৃহঃস্পতিবার, ৮ই ডিসেম্বর ২০২২, ২৪শে অগ্রহায়ণ ১৪২৯


এইচএসসি পরীক্ষার সূচি পরিবর্তন


প্রকাশিত:
১২ অক্টোবর ২০২২ ২১:০৩

আপডেট:
৮ ডিসেম্বর ২০২২ ০২:১৭

এইচএসসি পরীক্ষার সূচি পরিবর্তন

অনলাইন নিউজঃ আগামী ৬ নভেম্বর থেকে শুরু হতে যাওয়া এইচএসসি পরীক্ষার সময়সূচিতে কিছুটা পরিবর্তন আনা হয়েছে। একই দিনে শিক্ষার্থীদের সকালে-বিকেলে দুই বিষয়ে পরীক্ষা থাকায় তা পরিবর্তন করে সংশোধিত সময়সূচি প্রকাশ করা হয়েছে।

বুধবার (১২ অক্টোবর) ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক মো. আবুল বাশারের সই করা নতুন সময়সূচি প্রকাশ করা হয়েছে।

এ বিষয়ে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক আবুল বাশার বলেন, সংস্কৃতি বিষয়ের পরীক্ষার সময় পরিবর্তন আনা হয়েছে। এ বিষয়ে অল্প কিছু শিক্ষার্থী থাকলেও আগের রুটিনে একই দিনে সকালে ও বিকেলে দুটি পরীক্ষা দেওয়া হয়। সকালে পরীক্ষা দিয়ে বিকেলে আরেক পরীক্ষায় অংশ নেওয়া তাদের জন্য বাড়তি চাপ তৈরি হবে। সেটি বিবেচনা করে সংস্কৃতি বিষয়ের পরীক্ষার সময় পরিবর্তন করা হয়েছে।

সারাদেশে বন্যা পরিস্থিতির কারণে পেছানো ২০২২ সালের উচ্চ মাধ্যমিক (এইচএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা আগামী ৬ নভেম্বর শুরু হবে। দেশ বিদেশের ২৯৩টি কেন্দ্রের তালিকা প্রকাশ করেছে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড। এইচএসসি পরীক্ষা এবার সকাল ও বিকেল দুই ধাপে আয়োজন করা হবে। সকালের পরীক্ষা বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা এবং বিকেলের পরীক্ষা দুপুর ২টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। গত ১২ সেপ্টেম্বর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড এইচএসসি পরীক্ষার সূচি প্রকাশ করে।

সূচি অনুযায়ী, লিখিত বা তত্ত্বীয় পরীক্ষা চলবে ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত। অর্থাৎ ৩৮ দিনেই শেষ হবে এইচএসসির লিখিত পরীক্ষা। এরপর ১৫ ডিসেম্বর শুরু হবে ব্যবহারিক পরীক্ষা। যা শেষ হবে আগামী ২২ ডিসেম্বর। এইচএসসি ও সমমানের সব পরীক্ষা দুই ঘণ্টা হবে। এরমধ্যে বহুনির্বাচনী ২০ মিনিট এবং সৃজনশীল পরীক্ষার জন্য ১ ঘণ্টা ৪০ মিনিট সময় পাবে শিক্ষার্থীরা।

সূচিতে আরও জানানো হয়েছে, বহুনির্বাচনী ও সৃজনশীল প্রশ্নের মাঝে কোনো বিরতি থাকবে না। প্রথমে বহুনির্বাচনী এবং পরে সৃজনশীল বা রচনামূলক (তত্ত্বীয়) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষা শুরুর অন্তত ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীদের নিজ নিজ আসনে বসতে হবে। সময়সূচিতে মোট ১১ দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

চলতি বছরের এইচএসসি পরীক্ষা পুনর্বিন্যাসকৃত পাঠ্যসূচি অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হবে। এইচএসসিতে এবার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি পরীক্ষা না নিয়ে তা সাবজেক্ট ম্যাপিংয়ের মাধ্যমে নম্বর দেওয়া হবে।

স্বাভাবিক সময়ে ১০০ নম্বরের বিষয়গুলোর পরীক্ষা হতো ৩ ঘণ্টা। কিন্তু এবার সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে কম নম্বরে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে। এরই মধ্যে শিক্ষা বোর্ডগুলো জানিয়েছে, নম্বর কমিয়ে পরীক্ষা নেওয়া হলেও তা ১০০ নম্বরে রূপান্তর করে শিক্ষার্থীদের প্রাপ্ত নম্বর নির্ধারণ করা হবে।

সাধারণত এসএসসি পরীক্ষা শেষ হওয়ার মাস দুই পর এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হয়। মাঝের সময়টাতে চলে প্রস্তুতি। এবার এ দুই পরীক্ষা শুরুর মাঝের সময় কমিয়ে আনা হয়েছে।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: