ঢাকা শনিবার, ১৮ই সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৮


চাঁপাইনবাবগঞ্জে সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত হলেন হিমেল!


প্রকাশিত:
১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০০:৩৭

আপডেট:
১৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০৫:২১

নিউজ ডেস্ক: মৃত্যুর সংঙ্গে পাঞ্জা লড়ে হেরে গেলো বিদ্রোহী হিমেল! আজ রবিবার ১২ঃ১০ মিনিটে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউ ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন হিমেল বিশ্বাস (ইন্নালিল্লাহি ওইন্নাইলাইহি রাজিউন) প্রায় ১৯ ঘন্টা মৃত্যুর সাথে লড়াই করে মারা গেলো হিমেল বিশ্বাস।

ঘটনার বিবরণে জানা যায় এমন মৃত্যু কাম্য নয় ১৫ই ফেব্রুয়ারি ২০২০খ্রি. বিকেল ০৪ঃ৩০ এর দিকে নিহত হিমেলের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন,সাংবাদিক কপোত নবী ও হিমেল বিশ্বাস (৩০) মটর বাইক যোগে রাণীহাটি থেকে আসার পথে ফিল্ডের হাট সংলগ্ন ফিল্ডের নিকটেই নবাবগঞ্জ সোনামসজিদ সড়কে ঘটনাটি ঘটে, সেখানে এক স্টলে চা খাবার জন্য বিরতি নেন উভয়ে, মাঝে হিমেল ফোনে কথা বলছিলো, সাংবাদিক কপোত নবী পাশে দাড়িয়ে, এর মাঝেই কিছু সময় পরেই লুঙ্গি পরিহিত এক ব্যাক্তি হটাৎ হাসুয়া নিয়ে নিহত হিমেলের দিকে তেড়ে যেতে থাকলে সাংবাদিক কপোত নবী লোকটিকে বাঁধা দিলে তা অতিক্রম করে দুুুর্বৃত্তরা ।

এসময় সাংবাদিক কপোত নবী ঘটনা জানবার চেষ্টা করলে ভাই কি হয়েছে বলতেই কেন মারতে আসছেন নিহত হিমেলকে লোকটি তুই সর সামনে থেকে বলেই হাসুয়ায় কোপ এ্যালোপ্যাথারি মারে আল্লাহর রহমতে কোপটি সাংবাদিক কপোত নবীর হাতে থাকা চায়ের কাপে লেগে ভেঙ্গে চুরমার হয়ে যায় সাংবাদিক কপোত নবী উঠে ঘুরতেই লোকটি হিমেলের মাথায় কোপ দিয়েই দ্রুত গতিতে ফিল্ডের হাট মাইক্রোস্ট্যান্ড দিকে দৌরিয়ে পালিয়ে যায় হাটের পেছন দিকে, এত মানুষ কেউ হত্যাকারীকে ধরতে এগিয়ে আসেনি বলেও জানান সাংবাদিকদের কে কপোত নবী, রক্তাক্ত হিমেলকে সাথে সাথে চার্জার অটো বাইকে তুলে, টুপি ও মাফলার দিয়ে মাথা চেপে ধরে সদর হাসপাতালের ইমারজেন্সি তে দ্রুত নিয়ে আসে, সাংবাদিক কপোত নবী প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে অবস্থার অবনতি বিষয়ে চিকিৎসক নিশ্চিত করলে, দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতেলে পাঠানো হয় নিহত হিমেলকে।

দীর্ঘ ১৯ ঘন্টা মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিইউতে আজ রবিবার বেলা ১২ঃ২০মিনিটে মৃত্যু বরণ করেন হিমেল বিশ্বাস (৩০) । ঘাতক সন্ত্রাসী গুলো সে লুঙ্গি পরিহিত ব্যক্তি আর আশেপাশে আরো ২ /৩ জন ছিল কে এরা, বা এদের পরিচয় কি চেনা সম্ভব হয় নি,হাটে শতশত মানুষ দেখেছে মারতে। অবশ্যই এলাকার কেউ না কেউ হত্যাকারী ঘাতককে চিনে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ এরই মধ্যে ঘাতককে ধরতে কাজ শুরু করেছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মাহবুব আলম খাঁন পিপিএম, ওসি মো. জিয়াউর রহমান পিপিএম ঘটনা সম্পর্কে অবহিত আছেন এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে পদক্ষেপ নিয়েছেন। এই বলে নিহত আত্মীয়-স্বজনদেরকে আশ্বাস প্রদান করেন। উল্লেখ্য নিহত হিমেল বিশ্বাসের বাড়ী নিমতলা ফকিরপাড়া গোরস্থান সংলগ্নে। ঘটনার পূর্ব লগ্নে হিমেল বিশ্বাসের ফেসবুক আইডি (himel himel) হতে ভায়রাল হয় একটি লাইভ ভিডিও যেখানে স্পস্ট হয়ে উঠে ।

উল্লেখ্য যে, এ বিষয়ে সুস্থ তদন্ত পূর্বক কঠোর আইনি পদক্ষেপ গ্রহনের জোড়ালো আবেদন জানিয়েছেন ভূক্তভূগীর পরিবার ও এলাকাবাসি।



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: